আপনার পরিবারের একজন নারী অপঘাতে মারা গেলে সেদিন কি আপনি বুঝবেন তাদের বেদনা!

Posted by

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল নিজের ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট করেছেন। তার পোস্টটি পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হল-

‘নকল মানুষ! আমি প্রথম বিশ্বাস করিনি। তারপর এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছি। কিন্তু এ যন্ত্রনা কিছুতে লুকাতে পারছি না। কিভাবে সৌদী আরবে ৫৩ জন নারীর করুণ মৃত্যুকে খুব নগন্য মনে হয় দেশের একজন মন্ত্রীর। কতোবড় অমানুষ হলে এমন কথা বলা সম্ভব। আর কতোবড় অপদার্থ আমরা নিজেরা যে এ কথার পর তার বিচারের দাবীতে ফেটে পরি না একসাথে! মোমেন সাহেব আপনাকে বলছি।

আপনার পরিবারেও তো নারী আছে। এদের একজনও যদি অপঘাতে মারা যায় সেদিন কি আপনি বুঝবেন তাদের বেদনা! সৌদী আরবের কোন নরকে বা ভারতের সীমান্তে এদেশের মানুষের মৃত্যু কি একটু্ও বেদনার্ত্ করবে তখন আপনাকে? না হলে কিসে বুঝবেন আপনি?

এতোবছর উন্নত বিশ্বে থাকলেন, একটুও শিখেন নি তাদের থেকে? দেখেন নি একজন নাগরিকের জীবনও কতোটা গুরুত্বপূর্ন্ তাদের কাছে! নাকি পরচুলোর মতো মেকি আপনার সবকিছু!’

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (১৪ নভেম্বর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, সৌদি আরবে ৯৯ শতাংশ নারী কর্মী ভালো আছেন, দুই লাখ সত্তর হাজার কর্মীর মধ্যে মাত্র ৫৩ জনের মরদেহ এসেছে, বলেছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

সংবাদ সম্মেলনে আব্দুল মোমেন আরও বলেন, সৌদি আরবে নারী কর্মী পাঠানো বন্ধে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। অনেকে আন্দোলন করছেন নারী কর্মী পাঠানো বন্ধের জন্য। যারা এমন দাবি করছেন, তারা কি ওদের চাকরি জোগাড় করে দেবেন?