একাধিক বিয়ের অভিযোগে স্ত্রীর মা’মলায় ধর্মীয় বক্তা কা’রাগারে

Posted by

একাধিক বিয়ে ও অবৈ’ধভাবে নারীর সঙ্গে মেলামেলার অভিযোগে স্ত্রীর দায়ের করা মা’মলায় গ্রে’প্তার হয়েছেন কুমিল্লার চান্দিনার ধর্মীয় বক্তা মাওলানা আনিছুর রহমান। শুক্রবার তাকে আদালতের মাধ্যমে কা’রাগারে পাঠানো হয়েছে। মাওলানা আনিছুর রহমান কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার মাইজখার ইউনিয়নের আওরাল গ্রামের অহিদুল ইসলামের ছেলে।

আদালতে মা’মলা দায়ের করার পর বৃহস্পতিবার চান্দিনা থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে চান্দিনার নিজ বাড়ি থেকে মাওলানা আনিছুর রহমানকে গ্রে’প্তার করে।

মা’মলার এজাহারে স্ত্রী রোজিনা আক্তার উল্লেখ করেন, ২০০৯ সালের ৩ জুলাই তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের পর মাওলানা আনিছ বিদেশ (আবুধাবী) যান। সেখানে নারী কেলে’ঙ্কারিতে গ্রে’প্তার হয়ে বাংলাদেশে ফেরত আসেন। তার প্রাতিষ্ঠানিক কোন সনদপত্র না থাকা সত্ত্বেও দেশে এসে তিনি নিজেকে আলেম পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন জেলায় ওয়াজ-মাহফিল শুরু করেন। মাহফিল করার সুবাদে ঢাকায় লীজা নামে এক বিধবা মেয়েকে বিয়ে করেন। তার কিছুদিন পর চান্দিনার ফতেহপুরের সিরাজুম মনিরা নামে তিন সন্তানের জননীকে বিয়ে করেন। সামাজিক চাপে ওই নারীকে তালাক দিলেও ঢাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে আবারও ওই নারী নিয়ে অবৈধ মেলামেশা শুরু করেন। মাওলানা আনিছুর রহমানের ভাষায় পুরুষ হচ্ছে বাদশার জাত।

তবে এ ব্যাপারে মাওলানা আনিছুর রহমা নের সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি।মাওলানা আনিছুর রহমানের স্ত্রী রোজিনা আক্তারের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন কুমিল্লা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের সহকারি পিপি এড. শাহজালাল মিঞা শিপন।

এ ব্যাপারে চান্দিনা থানার ওসি মো. আবুল ফয়সল জানান, স্ত্রীর দায়ের করার মা’মলায় গ্রে’প্তারি পরোয়ানা থাকায় তাকে গ্রে’ফতার করা হয়েছে। শুক্রবার তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।