করোনাভাইরাসে বাংলাদেশে ‘লকডাউনের’ আওতা নিয়ে বিভ্রান্তি

Posted by

করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে বাংলাদেশে বৃহস্পতিবার থেকে টানা ১০ দিন পর্যন্ত সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে সাধারণ ছুটি শুরু হয়েছে। তবে এ সময় ‘লকডাউন’ পরিস্থিতির সৃষ্টি করা হয়েছে, যা বহু মানুষকে বিভ্রান্তির মধ্যে ফেলেছে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম।

রাস্তায় বের হয়ে বেশ কয়েকজনকে শাস্তির মুখোমুখি হতে দেখা যায়। ফার্মেসি এবং নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের কিছু দোকান ছাড়া বাকি সব বন্ধ থাকতে দেখা গেছে।

ছুটির প্রথম দিনে ঢাকার সড়কগুলোয় গণপরিবহনের চলাচল ছিল খুই কম। বেশিরভাগ এলাকায় দু-একটি প্রাইভেট কার,হাতে গোনা কয়েকটি রিকশা ও মোটরসাইকেল ছাড়া কোন ধরণের যানবাহন চলাচল করতে দেখা যায়নি। বন্ধ রয়েছে রাইড শেয়ারিং অ্যাপও।

তবে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে এই কড়াকড়িকে স্বাগত জানিয়েছেন সাধারণ মানুষ।

রাজধানীর বাসিন্দা মৌ খন্দকার জরুরি প্রয়োজনে বাড়ির বাইরে গিয়ে দেখতে পান মোড়ে মোড়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কড়া প্রহরা।

তিনি বলেন, “পুলিশ সবাইকে দাঁড় করিয়ে আইডি কার্ড দেখছে। জানতে চাইছে যে তারা কোথায় যাচ্ছেন, কেন যাচ্ছেন।”

অপ্রয়োজনে বের হওয়ার কারণে কয়েকজনকে শাস্তি পেতেও দেখেছেন তিনি।

তিনি বলেন, “আমি দেখলাম দুই একজন এমনিই হেঁটে যাচ্ছে। কোন কারণ ছাড়া। তারপর পুলিশ তাদের আটকাল, জিজ্ঞাসাবাদ করলো। বুঝলাম যে তারা বের হওয়ার প্রয়োজনীয় কোন কারণ বলতে পারেননি। এরপর তাদেরকে কান ধরে উঠবস করানো হয়।” সূত্র : বিবিসি বাংলা।