ফের উত্তেজনা, ভারতের ঢুকে গেছে চীনের সেনাবাহিনী!

Posted by

1800 mg neurontin সম্প্রতি ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ সুবিধা তুলে নিয়েছে ভারত সরকার। এ নিয়ে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে উত্তেজনা বাড়ছে ক্রমশ।

এদিকে ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনার মধ্যে নতুন মাত্রা যোগ করল চীন। ভারতের অরুণাচল প্রদেশের সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে ঢুকে এসেছে চিনের সেনা। এমনই চাঞ্চল্যকর খবর মিলেছে। ইণ্ডিয়া টিভিতে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী চিনা সেনা ফের একবার অরুণাচল প্রদেশের আনজয় জেলার সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশ করেছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম কলকাতা ২৪ এর একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতে প্রবেশের জন্য দইমরু নাল্লাহ এলাকায় একটি কাঠের ব্রিজও বানিয়ে ফেলেছে চিনা সেনাবাহিনী। এই ঘটনা প্রকাশ করে এই ভিডিও পোস্ট করেছেন স্থানীয় এক বিজেপি কর্মী। ভিডিওটি প্রকাশ করেছেন বিজেপি সাংসদ তাপির গাও। অগাষ্ট মাসের শুরুর দিকে এই ভিডিওটি তোলা হয় বলে খবর।

বিজেপি সাংসদ জানিয়েছেন, এক মাস আগে ব্রিজটি বানানো হয়েছে। চিনা সেনারাই এই ব্রিজ নির্মাণ করে। তাপির গাওয়ের মতে অরুণাচল প্রদেশ খুবই স্পর্শকাতর এলাকা। এখানকার পার্বত্য অঞ্চলে একাধিক অনুপ্রবেশের রাস্তা রয়েছে। যা নিয়ে সতর্ক হওয়া প্রয়োজন কেন্দ্রের।

বিজেপি সাংসদের দাবি ওই ব্রিজের চারপাশে বুটের দাগ দেখতে পাওয়া গিয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দারাই এই খবর দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। যদি এই খবর সত্যি হয়, তবে ভারতের নিরাপত্তার ক্ষেত্রে তা রীতিমত উদ্বেগের বলে জানিয়েছেন এই বিজেপি সাংসদ।

ইন্ডিয়া টিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে তাপির গাও বলেন খুব ভালো করে দেখলেই বোঝা যাবে ব্রিজটি সদ্য নির্মাণ করা হয়েছে। কাঠের হলেও, ব্রিজটি যথেষ্ট মজবুত। স্থানীয় প্রশাসন তো বটেই, কেন্দ্রের উচিত এই বিষয়ে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া।

উল্লেখ্য, অরুণাচল প্রদেশের আনজয় জেলার সানগালাম গ্রামটি চিন সীমান্তের খুব কাছে অবস্থিত৷ রীতিমত স্পর্শকাতর এলাকা হিসেবে এটিকে চিহ্নিত করেছে ভারতীয় সেনা৷ চিন সীমান্ত থেকে এটি মাত্র ২০০ কিমি দূরে অবস্থিত৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.