বাংলাদেশি টাকার সঙ্গে ভারতীয় মুদ্রার পার্থক্য ১৪ পয়সা

Posted by

ডলারের তুলনায় দাম আরো কমার পর বাংলাদেশি মুদ্রার প্রায় সমান হয়েছে ভারতীয় মুদ্রা রুপি। বাংলাদেশি টাকার তুলনায় ৭১’ এর পর সর্বনিম্ন দরে রয়েছে ভারতীয় রুপি।

সোমবার ঢাকায় ভারতীয় মুদ্রার সঙ্গে বাংলাদেশি টাকার মূল্যের পার্থক্য ছিল মাত্র ১৪ পয়সা। বাংলাদেশের ১০০ টাকা দিলে মিলছে ভারতের ৮৬ রুপি। যা ১৯৭১ এ বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর সর্বনিম্ন।

৭১’ এ বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর টাকা এবং রুপির দর প্রায় সমান ছিল। তারপর দিনদিন পড়তে থাকে বাংলাদেশি টাকার দাম। একসময় পার্থক্যটা অনেকটা বেড়ে গিয়েছিল।

আগস্ট থেকে ভারতীয় মুদ্রার অবনতি শুরু হয়।

সোমবার দিনের শুরুতেই ডলার প্রতি ভারতীয় রুপির দাম ৪২ পয়সা কমে দাঁড়ায় ৭২.০৮। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সেই নিম্নমুখী প্রবণতাও বজায় থাকে। কিছুক্ষণ পর রুপির দামে আরও পতন ঘটে। ৫৯ পয়সা কমে গিয়ে এক সময় ১ ডলারের দাম হয় ৭২.২৫ রুপি।

ভারতের তুলনায় বাংলাদেশের টাকার মূল্য বেড়ে যাওয়ায় সুবিধা দেখছেন ব্যবসায়ীরা।

খবর সংবাদ প্রতিদিনি।